বিকল্প কোনো স্থানে হবে রাজশাহীর কারা প্রশিক্ষণ একাডেমি

বিকল্প কোনো স্থানে হবে রাজশাহীর কারা প্রশিক্ষণ একাডেমি

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী :

দেশের একমাত্র কারা প্রশিক্ষণ একাডেমি রাজশাহীতে হবে। তবে পদ্মা নদীতে জেগে ওঠা চরে নয়, অন্য বিকল্প কোনো স্থানে। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এ তথ্য জানিয়েছেন। রোববার রাজশাহী-৬ (বাঘা-চারঘাট) আসনের এই সংসদ সদস্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এ ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, ‘বিকল্প স্থান খুঁজে দেওয়া আমাদের জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্ব’।

রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের পেছনে পদ্মা নদীর চরে এখন কারা প্রশিক্ষণ একাডেমি নির্মাণের প্রস্তুতি চলছে। এ নিয়ে ১০০ একর জমি অধিগ্রহণ করতে ভূমি মন্ত্রণালয়ে আবেদনও করেছে কারা কর্তৃপক্ষ। তবে এ খবরেই আন্দোলনে নেমেছে রাজশাহীর কয়েকটি সামাজিক সংগঠন। তারা পদ্মার চরে কারা একাডেমি নির্মাণের বিরোধীতা করে বলছে, নদীকে নিজস্ব গতিতেই চলতে দিতে হবে।

এ অবস্থায় নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেইজে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, ‘রাজশাহীতে যারা বেড়ে উঠেছেন তাদের পদ্মা নদীর সাথে একটা আত্মার সম্পর্ক আছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকারের অধীন কোনো প্রতিষ্ঠান জনগণের চাওয়ার বিপরীতে কোন সিদ্ধান্ত নেবে না। একই সাথে এখানকার প্রতিটি রাষ্ট্রীয় স্থাপনাগুলোও আমাদের অনেক গর্বের। প্রয়োজনে তাদের দেখভাল করাও সকলের কর্তব্য।’

তিনি লেখেন, ‘নতুন কিছু করতে চাইলে তার জন্য সঠিক জায়গা খুঁজে দেয়া আমাদের জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্ব। কারা প্রশিক্ষণ একাডেমি রাজশাহীতেই হবে, নতুন কোনো স্থানে। মন্ত্রণালয়ের সচিবের সাথে আমার কথা হয়েছে। প্রয়োজনীয় পরামর্শ তাকে আমি দিয়েছি। সেই অনুযায়ী কাজ হবে।’

কারা প্রশিক্ষণ একাডেমি নির্মাণ কাজের শুরুতেই কারাগারের নিজস্ব জমির ৫৬১টি পুরনো গাছ টেন্ডার দেয় কারা কর্তৃপক্ষ। কিছু গাছ কাটাও পড়ে। এ নিয়ে আন্দোলন শুরু করে কয়েকটি সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং পাখি ও পরিবেশবাদীরা। তখন গাছ কাটা বন্ধ ঘোষণা করে কারা কর্তৃপক্ষ। এখন আবার চরের জমি দখলের চেষ্টার ফলে আন্দোলন শুরু হলে গুঞ্জন ওঠে কারা প্রশিক্ষণ একাডেমি অন্য জেলায় চলে যাচ্ছে। এ অবস্থায় ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে বিষয়টি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিশ্চিত করলেন, রাজশাহীতেই হবে দেশের একমাত্র কারা প্রশিক্ষণ একাডেমি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *